তিনি মাঠে নামলেই ধারাভাষ্যকারেরা দুঃস্বপ্ন দেখা শুরু করবেন

0
52

এ মৌসুমে চোটাঘাতে ভুগছে বহু দল। করোনার কারণে এবার কোনো বিরতি ছাড়াই শুরু হয়েছে নতুন মৌসুমের খেলা। ফলে অধিকাংশ দল প্রায়ই পূর্ণ স্কোয়াড নামাতে পারছে না। রিয়াল মাদ্রিদে এক মৌসুম পর স্কোয়াডের সবাই সুস্থ, এমন এক তথ্য বাতাসে উড়ছিল। এইবার ম্যাচের স্কোয়াড ঘোষণার আগে জিনেদিন জিদান জানিয়ে দিলেন এডেন হ্যাজার্ড এখনো ম্যাচ ফিট নন। পায়ের অ্যাঙ্কেলে ব্যথা পেয়েছেন ইসকো, ওদিকে পেটের অসুস্থতা ভিনিসিয়ুস জুনিয়রকে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দিয়েছে!

প্রতিপক্ষ এইবারও ভালো অবস্থায় নেই। চোটের কারণে পূর্ণ স্কোয়াড পাচ্ছেন না কোচ হোসে লুইস মেন্দিলিবার। তাই ক্লাবের একাডেমি ও দ্বিতীয় দল থেকে খেলোয়াড় এনে ম্যাচ স্কোয়াড সম্পূর্ণ করতে হচ্ছে তাঁকে। সে সুবাদে দলে ডাক পেয়েছেন এক ফরোয়ার্ড। লা লিগায় এখনো পাঁচ বদলির নিয়ম চালু আছে। ফলে ম্যাচে গোলের আশায় তাঁকে নামাতেই পারেন কোচ মেন্দিলিবার। নামের প্রথমাংশটা সহজ, উনাই। কিন্তু স্প্যানিশ রীতিতে তো খেলোয়াড়ের পারিবারিক নাম নিয়েই ডাকতে হয়। আর সেটা উচ্চারণ করতে গেলেই বিপদে পড়ে যাবেন ধারাভাষ্যকারেরা।

বাস্ক কান্ট্রিতে জন্ম নেওয়া উনাইয়ের পারিবারিক নামে অক্ষর আছে ১৯টি। না, ভুল পড়েননি, ১৯টি। ‘এ’ দিয়ে শুরু, ‘এ’ দিয়ে শেষ। মাঝে আরও ১৭টি অক্ষর মিলিয়ে যে শব্দটি হয়েছে তার উচ্চারণ এমন, আরিয়েতালিয়েনিসবিয়াসকোয়া! চিন্তা করে দেখুন রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে গোল করে বসলেন এই ফরোয়ার্ড। কিন্তু গোলের বর্ণনা করতে গিয়ে খাবি খাচ্ছেন ধারাভাষ্যকারেরা! গোলদাতার নাম বলতে গিয়েই গোলের উদযাপন পর্ব শেষ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও আছে।

আরিয়েতালিয়েনিসবিয়াসকোয়ার অবশ্য শীর্ষ পর্যায়ে অভিষেক হয়ে গেছে। গত ৩০ সেপ্টেম্বর এলচের বিপক্ষে বদলি হিসেবে নেমেছিলেন। গোল পাননি, দলও হেরেছিল ১-০ গোলে। সে ম্যাচে তাঁর নাম খুব বেশি উচ্চারণ করতে হয়নি। তবু তাঁর নাম উচ্চারণ করা নিয়ে টুইটারে এক পশলা রসিকতা হয়ে গিয়েছিল সেদিন। কিন্তু এলচের বিপক্ষে ম্যাচ বলে সেদিন ২১ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডকে নিয়ে অন্তত আলোড়ন ওঠেনি।

আজ বাংলাদেশ সময় রাত ২টায় মুখোমুখি হবে রিয়াল মাদ্রিদ ও এইবার। গতকাল তাই দুই দলই স্কোয়াড ঘোষণা করেছে। এইবারের স্কোয়াড ঘোষণার পরই উনাইকে নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। স্প্যানিশ ফুটবলে তাঁর পদবিই সবচেয়ে বড় কি না, এ নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেছে। এর মধ্যে এক রসিক দর্শক প্রস্তাব দিয়েছেন নাপোলিতে খেলা অস্ট্রেলিয়ান ফুটবলার জাসিন্তার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হোক। অস্ট্রেলিয়ান এই ফুটবলারের সঙ্গে যদি উনাইয়ের বিয়ে হয়, তবে তাঁদের সন্তানের নামের প্রথম অংশ যাই হোক না কেন, বাকি অংশটা সবার মুখ বন্ধ করে দিতে বাধ্য।

কেন? কারণ, স্প্যানিশ নামে পদবি হিসেবে বাবার পদবি থাকে, আর মায়ের পদবি মাঝের নাম হিসেবে ব্যবহৃত হয়। শ্রীলঙ্কান বংশোদ্ভূত জাসিন্তার পদবিও কম লম্বা নয়, ১৬ অক্ষরের! জাসিন্তা ও উনাইয়ের কল্পিত সন্তানের নামের শেষ দুই অংশ হবে গালাবাদারাচ্চি আরিয়েতালিয়েনিসবিয়াসকোয়া!