পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ নেপালের প্রধানমন্ত্রীর

0
71
নেপালের প্রধানমন্ত্রীর
নেপালের প্রধানমন্ত্রীর

জরুরি বৈঠক ডেকে পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি। নেপালের সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, আজ রোববার সকালে মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক ডেকেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, তাঁরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছে। পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়া হোক।

গতকাল শনিবার দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কয়েক দফা বৈঠক করেন কেপি শর্মা ওলি। এরপর আজ সকালে মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদের নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকার সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছে। এখন পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়া হোক।’

দ্য কাঠমান্ডু পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সংবিধান পরিষদীয় আইনের অধ্যাদেশের বিষয়টি নিয়ে চাপ বাড়ছিল কেপি শর্মা ওলির ওপর। গত মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট বিদ্যাদেবী ভাণ্ডারীকে দিয়ে তা সই করিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। তা ছাড়া বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে অসন্তোষ তৈরি হচ্ছিল।

নেপালের কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা বিষ্ণু রিজাল বলেন, প্রধানমন্ত্রী সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছেন। পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করেছেন তিনি।

নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির এক নেতা মাধব নেপালকে উদ্ধৃত করে গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার বিষয়টি অসাংবিধানিক। এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা উচিত।

নেপাল কমিউনিস্ট পার্টি ২০১৭ সালের নির্বাচনে (২৭৫ জন পার্লামেন্ট সদস্য) জয় পেয়ে সরকার গঠন করে। সেই সরকার ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করলেন কেপি শর্মা ওলি। সংবিধান অনুযায়ী ২০২২ সালে দেশটিতে নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।